৪-০ গোলের জয় বার্সেলোনার

                                            লিওনেল মেসি সর্বশেষ বল পায়ে মাঠের ফুটবল খেলেছেন নাকি মাস তিনেক আগে! কিন্তু কে বলবে সে কথা? নয়তো করোনার আগে যেখানে থেমেছেন সেখান থেকেই শুরু করেন কিভাবে? তাও আবার ডান পায়ের উঁরুর পেশিতে চোট নিয়ে নাকি! গত ডিসেম্বরে লিগে প্রথম দেখায় মায়োর্কাকে ৫-২ গোলে হারিয়েছিল বার্সেলোনা। যেখানে হ্যাটট্রিক ছিল মেসির।  আবার লা লিগায় খেলা ফেরার পর মাঠে নেমে ফুটবল জাদুতে ভক্তদের অপেক্ষার তৃপ্তি পূরণ করেছেন মেসি। ফিরতি লিগে রিয়াল মায়োর্কার মাঠে খেলতে নেমে বার্সেলোনাকে ৪-০ গোলের বড় জয় এনে দিলেন দলটির অধিনায়ক। নিজে করেছেন ১ গোল। তবে করিয়েছেন ২টি। দলের পক্ষে মেসি ছাড়া বাকি তিন গোল করেছেন আর্তুরো ভিদাল, মার্টিন ব্রাথওয়েট ও জর্দি আলবা।

মায়োর্কার মাঠে খেলতে নেমে ঘড়ির কাটা যখন ৭০ সেকেন্ড ছুঁইছুঁই তখনই এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। জর্দি আলবার ডিবক্সে বাড়ানো শটে হেডে বল জালে জড়ান চিলির মিডফিল্ডার ভিদাল।

তবে এরপরে কিছুটা আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে থাকে স্বাগতিকরা। ২২ মিনিটে সতীর্থ রদ্রিগেসের বাড়ানো বল ধরে ডি-বক্সের মুখ থেকে বার্সা গোলমুখে জোরালো শট নেন জাপানের মিডফিল্ডার তাকেফুসা কুবো। তবে মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেনের দৃঢ়তায় হতাশ হতে হয় তাদের। এরপর আরও কিছু বিক্ষিপ্ত আক্রমণ এবং ডি বক্সের সামনে থেকে একটা ফ্রি কিকও আদায় করে মায়োর্কা। তবে ম্যাচে ফেরার জন্য যা যথেষ্ট ছিলো না।

বার্সেলোনা ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় ৩৬ মিনিটে। মেসির অ্যাসিস্টে মার্টিন ব্রাথওয়েটের গোল করে দলকে ২-০ গোলে এগিয়ে দিলে। জানুয়ারিতে বার্সেলোনায় যোগ দেওয়ার পর দলটির হয়ে লা লিগায় ডেনিশ এই ফুটবলারের এটি প্রথম গোল।

প্রথমার্ধে একটা অ্যাসিস্ট করলেও চেনা ছন্দ থেকে ছিলেন দূরে। সে আক্ষেপও মিটিয়ে দিলেন দ্বিতীয়ার্ধে। চলতি মাসে ৩৩ পূর্ণ করা এই আর্জেন্টাইন যে ৯৮ দিন পর মাঠে ফিরেছেন খেলা দেখে সেটি বুঝার কোনো উপায়ই ছিলো না। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে একটা ভালো সুযোগ তৈরি করেছিলেন, কিন্তু সতীর্থদের ব্যর্থতায় বল জালে জড়ানো সম্ভব হয়নি।                             

ম্যাচের ৭৯ মিনিটে মাঝ মাঠের কাছ থেকে মেসির দারুণ এক পাসে গোল করে বার্সার জয় নিশ্চিত করে ফেলেন স্প্যানিশ ডিফেন্ডার জর্দি আলবা। এটি ছিল লা লিগায় চলতি মৌসুমে মেসির ১৪তম অ্যাসিস্ট। তবে বার্সার গোলের হালি পূর্ণ করার তখনও বাকি ছিল। নিয়মিত একাদশে সুযোগ না পাওয়া লুইস সুয়ারেজ বদলি হিসেবে নেমে করলেন অ্যাসিস্ট। এই উরুগুইয়ানের পাস থেকে ম্যাচের ইনজুরি টাইমে দারুণ বাঁকানো শটে জাল খুঁজে নিয়ে বার্সার ৪-০ গোলের জয় নিশ্চিত করেন অধিনায়ক মেসি নিজেই।

এই গোলের মধ্য দিয়ে ইতিহাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে লা লিগায় টানা ১২ আসরে অন্তত ২০ গোলের কীর্তি গড়লেন এই আর্জেন্টাইন।

এই জয়ে বার্সা ২৮ ম্যাচে ৬১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান সুসংহত করলো। এক ম্যাচ কম খেলে ৫ পয়েন্ট পিছিয়ে দুইয়ে আছে রিয়াল মাদ্রিদ।

 


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শিক্ষাঙ্গন

খেলাধুলা

লাইফস্টাইল

ঘোষনাঃ