পরীক্ষাভীতি এমনই একটি অমূলক ভয় :নেসার উদ্দীন আয়ূব

No photo description available.                                                                                                                           পৃথিবীতে বেশিরভাগ ভয়েরই কোনো যৌক্তিক কারণ নেই। তারপরও মানুষ ভয় পায়। পরীক্ষাভীতি এমনই একটি অমূলক ভয়। কিন্তু পরীক্ষা যত কাছে আসে, অধিকাংশ শিক্ষার্থীরই টেনশন তত বাড়তে থাকে। এই টেনশন খুবই স্বাভাবিক। অনেক বড় বড় শিল্পীরা বলেন, মঞ্চে উঠলে বা ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালে তাদের বুক কাঁপে। কারো কারো হাত-পাসহ শরীরও কাঁপে। কিন্তু তাই বলে কি তারা খুব ভালো গান করেন না? করেন।

আমি ব্যক্তিগতভাবে টেলিভিশন ও বেতারে সংবাদ পড়ি। টেলিভিশনে সংবাদ শুরুর এক মিনিট আগে ‘টকব্যাক’-এ (কানে লাগানো গোপন মাইক্রোফোন) অপারেটিং রুম থেকে যখন একজন ইঞ্জিনিয়ার বলেন, ‘লাস্ট মিনিট’ অর্থাৎ রেডি হন, এক মিনিট পরই খবর শুরু হবে। তখনই বুকটা হঠাৎ ধড়ফড় করে ওঠে। এরপর শুরু হয় দুরুদুরু। কিন্তু দর্শককে কি আমরা সেটা বুঝতে দিই? মোটেই না। তুমি দেখেছো, একজন সংবাদ উপস্থাপক কত সাবলীলভাবে হাসিমুখে খবর পড়ছেন। কিন্তু এর পেছনের ব্যাপারটা কিন্তু ভিন্ন। অনেকেরই লুকানো ভীতিটা তুমি দেখতে পাচ্ছো না। কিংবদন্তি সংবাদ উপস্থাপক রুখসানা আনোয়ার আমাকে বলেছিলেন, সারা জীবন বিটিভির সংবাদ শুরুর আগে স্টুডিওর লাইট জ্বলে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে তাঁর বুক ধড়ফড় করে উঠত। এরপরও সংবাদ উপস্থাপক হিসেবে তিনি জীবন্ত কিংবদন্তি।

হ্যাঁ, আমি বোঝাতে চাইলাম- সব বিখ্যাত মানুষই, সব সেলিব্রেটিরাই পারফরম্যান্সের সময় টেনশন অনুভব করেন। পরীক্ষা একজন শিক্ষার্থীর জীবনের সবচেয়ে বড় পারফরম্যান্স। তাই এটা নিয়ে টেনশন হতেই পারে।
টেনশন কোন জিনিস নিয়ে হয়? আমরা যেটা খুব ভালোভাবে করতে চাই বা একান্তই পেতে চাই, সেটা নিয়েই তো টেনশন হয়। তাই পরীক্ষার টেনশন কোনো সমস্যা নয়। এই টেনশনকে কাজে লাগিয়ে, ভয়কে জয় করে আরো সিরিয়াসলি প্রস্তুতি নিলেই বরং পরীক্ষা আরো ভালো হবে। তাই পরীক্ষাভীতিতে ভয়ের কিছু নেই।

কিন্তু কিছু কিছু শিক্ষার্থী এই ভয়ে এতটাই কাতর হয়ে পড়ে যে, তারা পরীক্ষাভীতির কারণে প্রস্তুতি নিতে ত্রুটি করে ফেলে। এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ে পরীক্ষার ফলাফলে। এমন শিক্ষার্থীও পাওয়া যায়, তারা পরীক্ষার আগে মাথাব্যথা, জ্বর, পেটের অসুখের মতো রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এসব সমস্যা পরীক্ষার্থীর মনস্তাত্ত্বিক ভীতি ও নানারকম ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়ার কারণে হয়ে থাকে। তাই পরীক্ষাভীতির মতো অমূলক ভয়কে মন থেকে আজই তাড়িয়ে দাও।

তবে মনে রাখবে, যার পরীক্ষা-প্রস্তুতি যত ভালো, তার পরীক্ষাভীতি তত কম। তাই পরীক্ষাভীতি দূর করার সবচেয়ে কর্যকর ওষুধ হচ্ছে, খুব ভালোভাবে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়া।

 


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শিক্ষাঙ্গন

খেলাধুলা

লাইফস্টাইল

ঘোষনাঃ