ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঘটনাস্থলের সামনে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা

                                                            আল মুজাদ্দেদী২৪বিডী.কম  :  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঘটনাস্থলের সামনে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। সোমবার (৬ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাবির কয়েকটি বাসে করে শিক্ষার্থীরা কুর্মিটোলায় যান।

জানা গেছে, ক্ষণিকা, বৈশাখী ও চৈতালী বাসের শিক্ষার্থীরা ঘটনাস্থলের কাছে যান। এসময় তারা সড়ক অবরোধ করে অবস্থান নেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শিক্ষার্থীরা কুর্মিটোলা রাস্তায় বসে পড়েন। ধর্ষকের গ্রেফতার ও বিচার চেয়ে নানা স্লোগান দেন তারা। ‘ধর্ষকের কালো হাত ভেঙে দাও গুঁড়িয়ে দাও’, ‘ধর্ষকের ফাঁসি চাই’, ‘আমার বোন ধর্ষিত কেন, ফাঁসি ফাঁসি ফাঁসি চাই’- ইত্যাদি স্লোগান দেন তারা।

রোববার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে বান্ধবীর বাসায় যেতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন ঐ ছাত্রী। বান্ধবীর বাসা শেওড়া হলেও ভুল করে তিনি কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে বাস থেকে নেমে যান।

আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী জানায়, বিমানবন্দর সড়কে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের কাছে গলফ ক্লাব সীমানার শেষ প্রান্তে ঝোপের মধ্যে মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়।

ঐ শিক্ষার্থীর বরাত দিয়ে ঢাকা মেডিকেল ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাস থেকে নামার পরপরই অজ্ঞাত পরিচয় কোনো লোক পেছন থেকে তার মুখ চেপে ধরে পাশের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে মেয়েটি চেতনা হারান। এরপর রাত পৌনে ১টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়।

এদিকে ফরেনসিক পরীক্ষায় ঐ ছাত্রীকে ধর্ষণের আলামত পাওয়ার কথা জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক সোহেল মাহমুদ জানান, মেয়েটির গলা, হাত, গালসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। সারা পায়ে খোঁচা লাগার দাগ রয়েছে। মেয়েটির গলায় ধর্ষণকারীর হাতের চিহ্ন দেখা গেছে। বোঝা গেছে, ধর্ষণকারী তার গলা টিপে ধরেছিল।

 


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শিক্ষাঙ্গন

খেলাধুলা

লাইফস্টাইল

ঘোষনাঃ