কচুয়ায় পল্লী বিদ্যুতের উদাসীনতায় কেড়ে নিলো সুলতানার প্রাণ

রাজীব চন্দ্র শীলঃ চাঁদপুরের কচুয়ায় পল্লী বিদ্যুতের উদাসীনতায় কেড়ে নিল শিরীন সুলতানা(২৫) নামক এক মহিলার প্রাণ।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ১৭ই অক্টোবর শনিবার দুপুর ২টার দিকে নাউলা গ্রামের পাটোয়ারী বাড়ির আবদুল হক এর মেয়ে শিরীন সুলতানা গোসল করতে ঘর থেকে বেরিয়ে উঠানে আসলে পল্লী বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে শিরীন সুলতানার গায়ে এসে পড়ে এবং সঙ্গে সঙ্গে সে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মারা যায়।

নিহত শিরীন সুলতানার মা নাজমা আক্তার বলেন,আমাদের বাড়ীর উঠানের উপর দিয়ে পল্লী বিদ্যুতের যে তার দুইটি গিয়েছে,প্রত্যেকটি তার ৪-৫ টি করে জোড়া দেওয়া।কয়েক মাস পর পর এই তার ছিঁড়ে পড়ে।মেরামত করতে আসা পল্লী বিদ্যুতের লাইনম্যানদের বার বার অভিযোগ করা সত্ত্বেও তারা কোন প্রতিকার করেনি।উল্টো তারা আমাদেরকে বলে যত জোড়া দেওয়া হবে তত তার মজবুত হবে।এতে আপনাদের কোন অসুবিধা হবে না।

পাটোয়ারী বাড়ীর প্রতিবেশীরা বলেন,পল্লী বিদ্যুতের লাইনম্যানদের আমরা ও বলেছি এই তার পরিবর্তন করে নতুন তার দিন আপনারা।আমাদের কথার কর্ণপাত না করে উল্টো তারা বলেন,আপনারা কি আমাদের চাইতে বেশী বুঝেন নাকি?যত জোড়া দেবে তার তত মজবুত হবে।আমরা তাদের কথা বিশ্বাস করে পল্লী বিদ্যুতের অফিসে আর যাইনি।আপনি দেখুন এখনো একটি তারের প্রায় ৮০% ছিড়ে গেছে। যে কোন মুহূর্তে সেটিও ছিড়ে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

তবে এই ব্যাপারে কচুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীপায়ন দাস শুভের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,আমি পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম জাহাঙ্গীর সাহেবের সাথে কথা বলবো। তবে এ বিষয়ে পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম জাহাঙ্গীর আলমের সাথে কথা বললে,তিনি বলেন তারের জোড়া নিয়ে এই রকম কোন অভিযোগ আমি পাইনি।আপনি যেহেতু ফোন করেছেন আমি ঘটনাস্থলে লোক পাঠিয়ে বিস্তারিত জেনে পদক্ষেপ নেবো।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শিক্ষাঙ্গন

খেলাধুলা

লাইফস্টাইল

ঘোষনাঃ