এরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী জাহিদ র‌্যাব হেফাজতে

ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস‌্য হাজী সেলিমের ছেলে ও ঢ‌াকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. এরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী জাহিদকে র‌্যাব হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তদন্তের পর তাদের বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের আইন ও গণমাধ‌্যম বিভাগের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ।

সোমবার (২৬ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর দেবিদাস ঘাট লেন সংলগ্ন এরফানের দাদার বাসার কাছে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

আশিক বিল্লাহ বলেন, ‘সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে সোমবার দুপুরে এরফানের দাদার বাসায় অভিযান চালানো হয়েছে। এ সময় এরফান ও জাহিদ বাসায় অবস্থান করছিলেন।’

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘কোন কারণে তাদের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে, তা এখনই বলা যাবে না। এটি তদন্তের বিষয়। তদন্তের পরই বলা যাবে, তাদের কোন মামলায় বা কোন অভিযোগের ভিত্তিতে হেফাজতে নেওয়া হলো। সেজন্য অপেক্ষা করতে হবে।’

এদিকে, হাজী সেলিমের দুই বাসায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানের কারণে আশপাশের সব রাস্তায় ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছে। ওই এলাকায় উৎসুক জনতা ভিড় করছেন।গতকাল রোববার সন্ধ‌্যায় নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তাকে মারধরের অভিযোগ ওঠে এরফানসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ধানমন্ডি থানায় ভুক্তভোগীর পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেখানে পাঁচজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও দুজনকে আসামি করা হয়। তাদের মধ্যে এরফানের গাড়ির চালক মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে ধানমন্ডি থানা পুলিশ।rbd


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শিক্ষাঙ্গন

খেলাধুলা

লাইফস্টাইল

ঘোষনাঃ