অপারেশন সুন্দরবন এর টাইটেল স্পন্সর পেট্রোম্যাক্স এলপিজি

    র‌্যাব ওয়েলফেয়ার কো-অপারেটিভ সোসাইটি এর প্রযোজনায় সুন্দরবনে র্যাবের দুঃসাহসিক অভিযান নিয়ে বাংলাদেশের প্রথম ওয়াইল্ড লাইফ অ্যাকশন থ্রিলার মুভি ‘অপারেশন সুন্দরবন’এর টাইটেল স্পন্সর হয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় এলপিজি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান পেট্রোম্যাক্স এলপিজি লিমিটেড।
সম্প্রতি র‌্যাব ফোর্সেস সদর দপ্তরে পেট্রোম্যাক্স এলপিজি লিমিটেড এবং র‌্যাব ওয়েলফেয়ার কো- অপারেটিভ সোসাইটি এর মধ্যকার বাংলাদেশের প্রথম ওয়াইল্ড লাইফ অ্যাকশন থ্রিলার মুভি ‘অপারেশন সুন্দরবন’ চলচ্চিত্রের টাইটেল স্পন্সরশিপের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
‘অপারেশন সুন্দরবন’ চলচ্চিত্রের টাইটেল স্পন্সরের চেকটি ইয়ুথ গ্রুপের চেয়ারম্যান জনাব রেজাকুল হায়দার, র‌্যাবের মহাপরিচালক অতিঃ আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনের নিকট হস্তান্তর করেন।
উক্ত অনুষ্ঠানে র‌্যাবের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন অতিঃ মহাপরিচালক (অপারেশনস্) কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ডিআইজি ইমতিয়াজ আহমেদ, আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ,পরিচালক ইন্টেলিজেন্স উইং লে. কর্নেল খাইরুল ইসলাম, উপ-পরিচালক মেজর হুসাইন রইসুল আজম মনি সহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বৃন্দ। পেট্রোম্যাক্স এলপিজি লিমিটেড এর পক্ষ থেকে আরো উপস্থিত ছিলেন পেট্রোম্যাক্স এলপিজি লিমিটেড এর পরিচালক জনাব নাফিস কামাল, চিফ অপারেটিং অফিসার জনাব ফিরোজ আহমেদ, ব্রান্ড & মার্কেটিং ম্যানেজার আসমা আব্দুল্লাহ সহ আরো অনেকে।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সার্বিক নির্দেশনায় এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রত্যক্ষ তত্বাবধানে, র্যাব মহাপরিচালককে প্রধান সমন্বয়কারী করে সুন্দরবনকে জলদস্যু ও বনদস্যু মুক্ত করতে টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়। ‘লিড এজেন্সি’ হিসেবে ২০১২ সাল থেকে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান র‌্যাব জোড়ালো অভিযান পরিচালনা করে আসছে। ২০১২-২০১৮ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন অভিযানের মাধ্যমে সুন্দরবনের দস্যু বাহিনীদের আটকের সাথে সাথে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়। উক্ত অভিযানের ফলে অনেক জলদস্যু ফেরারী জীবনের অবসান ঘটিয়ে আত্নসমরপনের পথ বেছে নিয়েছে। অবশেষে ২০১৮ সালের ১ নভেম্বর সুন্দরবনকে জলদস্যু মুক্ত হিসেবে ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। সুন্দরবনে র‌্যাবের এই সাফল্যগাঁথা ও রোমাঞ্চকর অভিযান চিত্র জনসাধারণের মাঝে তুলে ধরতেই নির্মাণ করা হচ্ছে ‘অপারেশন সুন্দরবন’।
চলচ্চিত্রটিতে দেশি-বিদেশি জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রী, শিল্পী-কলাকুশলী, মিউজিসিয়ান এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও ভিএফএক্সের ছোঁয়ায় নির্মাণ করা হবে। ‘অপারেশন সুন্দরবন’ চলচ্চিত্রটির পরিচালক হিসেবে থাকছেন পরিচালক দীপংকর দীপন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শিক্ষাঙ্গন

খেলাধুলা

লাইফস্টাইল

ঘোষনাঃ